বন অধিদপ্তর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৫ মার্চ ২০১৮

রক্ষিত এলাকা সমূহে কার্বন জরিপ

 

 

২০১০-১১ ইং সনে IPAC প্রকল্পের আওতায় ৬টি রক্ষিত এলাকার (Protected Area) কার্বনের পরিমান জরিপ করা হয়। রক্ষিত এলাকা সমূহঃ

 

১) দুধপুকুরিয়া-ধোপাছড়ি বন্যপ্রানী অভয়ারণ্য,

২) ফাসিয়াখালি বন্যপ্রানী অভয়ারণ্য,

৩) টেকনাফ বন্যাপ্রনী অভয়ারণ্য,

৪) মেধাকচ্ছপিয়া জাতীয় উদ্যান,

৫) ইনানী জাতীয় উদ্যান (প্রস্তাবিত),

৬) সীতাকুন্ড সংরক্ষিত বন।

 

 

কার্বনের পরিমান নির্নয়ের ক্ষেত্রে বিভিন্ন স্তরে ৫টি কার্বন-পুল বিবেচনায় আনা হয়। এগুলো হলোঃ


১) ক. Trees above ground (ভূমির উপরের গাছসমূহে যেমনঃ পুরো গাছ)
     খ. Trees below ground (ভূ-নিম্নস্থ গাছের অংশ সমূহ, যেমনঃ root system)
২) Seedling & Sapling (ছোট ও অপেক্ষাকৃত বড় চারাসমূহ)
৩) Non-tree vegetation
৪) Down wood (পতিত কাঠ) এবং
৫) Soil (০ থেকে ১০০ সেমি পর্যন্ত গভীরতার মাটির অংশ)

 

নীচের টেবিল এ রক্ষিত এলাকা সমূহে প্রাপ্ত কার্বন এর পরিমাণ উল্লেখ করা হলো:

 

রক্ষিত এলাকার নাম

জীবিত গাছ
(কার্বন
টন/হেঃ)

মৃত গাছ
(কার্বন
টন/হেঃ)

স্যাপলিং
(কার্বন
টন/হেঃ)

সিডলিং
(কার্বন
টন/হেঃ)

বাঁশ
(কার্বন
টন/হেঃ)

 

বেত
(কার্বন
টন/হেঃ)

পাতা
(কার্বন
টন/হেঃ)

মূল
(কার্বন
টন/হেঃ)

মোট কার্বন
(কার্বন
টন/হেঃ)

দুধপুকুরিয়া-ধোপাছড়ি
বন্যপ্রানী অভয়ারণ্য,

৬৫.৩০৬

০.৫৫৫

৫.২০৯

০.০২২

১৬.০৫

০.০৮১

১.২৫২

১৬.৯৮

১০৫.৪৬

ফাসিয়াখালি বন্যপ্রানী
অভয়ারণ্য

৭৪.৮৪৮

০.৫২৪

৫.৪১৮ 

০.৩৫৭

১.৭৭০

৬.২৩২

১.৫৫৪

১৯.৪৬

১১০.১৬

ইনানী জাতীয় উদ্যান

৭.০৯৩

 - 

৭.৮৭০

 ০.০০১

৮.৩৫০

০.০১৫

০.৮২২

১.৮৪

 ২৫.৯৯

মেধাকচ্ছপিয়া জাতীয়

উদ্যান

১২৬.৯৩

 ৫.৯৬

৯.৮৫

০.০১

১০.৩১

০.১২ 

১.৫৭

৩৩.০০

১৮৭.৭৫

সীতাকুন্ড সংরক্ষিত বন

২.০৬

 ০.১২

১৯.০৯

০.০০

০.০০

০.০০

০.৭০

০.৫৪

২২.৫১

টেকনাফ বন্যাপ্রনী
অভয়ারণ্য

৯.৫৬

 - 

৭.৯৬

০.০০৪

২০.৯০

 ০.২৪

১.৯৩

২.৪৯

৪৩.০৮

 

 

পরবর্তীতে USAID এর আর্থিক সহায়তায় ২০১৪ ইং সনে The Climate Resilient Ecosystems and Livelihoods (CREL)

 প্রকল্পের আওতায় ৮টি রক্ষিত এলাকার (Protected Area) কার্বনের পরিমান জরিপ করা হয়। রক্ষিত এলাকা সমূহঃ

 

১) খাদিমনগর জাতীয় উদ্যান

২) লাওয়াছরা জাতীয় উদ্যান

৩) সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান

৪) মধুপুর জাতীয় উদ্যান

৫) কাপ্তাই জাতীয় উদ্যান

৬) হিমছড়ি জাতীয় উদ্যান

৭) রেমা কালেঙ্গা বন্যপ্রানী অভয়ারণ্য

৮) চুনতি বন্যপ্রানী অভয়ারণ্য

 

নীচের টেবিল এ রক্ষিত এলাকা সমূহে প্রাপ্ত কার্বন এর পরিমাণ উল্লেখ করা হলোঃ

রক্ষিত এলাকার নাম

জীবিত গাছ
(কার্বন

Mg/ha)

মৃত গাছ
(কার্বন

Mg/ha)

নন-ট্রি
(কার্বন

Mg/ha)

লিটার
(কার্বন

Mg/ha)

মৃত্তিকা
(কার্বন

Mg/ha)

মোট
CO2
(Mg/ha)

জরিপ এলাকা (ha)

মোট CO2

Mg of the PA
 

লাওয়াছরা জাতীয় উদ্যান

২৬৯.২

৩.৮

১.৫ ৮.৬ ৪০.৭ ৩২৩.৮ ২,৫৮৩ ৮৩৬,৪৫৬

সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান

২১৯.১

০.৩

১.০ ১১.৫ ৩৩.৯ ২৬৫.৮ ১,৮০৭ ৪৮০,২৯৫

রেমা কালেঙ্গা বন্যপ্রানী অভয়ারণ্য

৩১৯.১

০.০

০.৯ ৫.২ ৪৫.৬ ৩৭০.৭ ৫,৫১৮ ২,০৪৫,৪৮৭

খাদিমনগর জাতীয় উদ্যান

২৬৪.২

-

০.৮ ৭.১ ২৬.৩ ২৯৮.৩ ৭৭৯ ২৩২,৪১২

মধুপুর জাতীয় উদ্যান

১৯৫.৫

 -

০.৮ ৬.৪ ৩২.২ ২৩৪.৮ ৮,২৬১ ১,৯৩৯,৬০৬

কাপ্তাই জাতীয় উদ্যান

২২২.০

৩.৩

১.০ ৫.০ ২৭.২ ২৫৮.৫ ৫,০৯০
১,৩১৫,৬০১
চুনতি বন্যপ্রানী অভয়ারণ্য ১০৩.৮ ০.২ ১০.৫ ৮.৯ ২৩.১ ১৪৬.৪ ৮,৩২০ ১,২১৮,০৩৭
হিমছড়ি জাতীয় উদ্যান ৩৭.৯ ০.৪ ০.২ ০.১ ১৪.২ ৫২.৮ ২,০১৮ ১০৬,৬০৫

 

 

 

 

 


Share with :