বন অধিদপ্তর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৫

উপকূলীয় বনায়নে অর্জিত সাফল্য

 

 

 

বাংলাদেশ বন বিভাগ উপকূলীয় চরাঞ্চলে সফল বনায়ন পদ্ধতির উদ্ভাবক। বন বিভাগ কর্তৃক উপকূলীয় বনায়ণের সফলতা প্রত্যক্ষ করে সরকার উপকূলীয়  ১২ লক্ষ ৩৬ হাজার একর (প্রায় ৫ লক্ষ  হেক্টর) এলাকা বনায়নের লক্ষ্যে পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় এর নিকট হস্তান্তর ও বন আইনের ৪ ধারায় সংরক্ষিত ঘোষণা করেছেন। বন বিভাগ এ যাবৎ প্রায় ১ লক্ষ ৯৭ হাজার হেক্টর চরাঞ্চলে বনায়নের মাধ্যমে নয়নাভিরাম উপকূলীয় বন প্রতিষ্ঠা করেছে। বনায়নের মাধ্যমে সাগর থেকে জেগে ওঠা ১ লক্ষ ১০ হাজার একর বনভূমি শস্য উৎপাদনের জন্য ভূমি মন্ত্রণালয়ে হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

তাছাড়াও ম্যানগ্রোভ বনায়নের পাশাপাশি উপকূলীয় জেলাসমূহে নন-ম্যানগ্রোভ ৮৮৬০ হেক্টর, গোলপাতা ৩১৯০ হেক্টর, নারিকেল ১০ হেক্টর, এরিকা ৪০ হেক্টর, বাঁশ ও বেত ২৮০ হেক্টর, রাস্তার ধারে ৪৮৫০ হেক্টর (রূপান্তরিত) বনায়ন করা হয়েছে।

 

উপকূলীয় সৃজিত বন নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, পটুয়াখালী ও ভোলা জেলার উপকূলে পর্যটন বিকাশের দ্বার উন্মোচন করেছে। উপকূলের বন সবুজ বেষ্ঠনী হিসাবে জনগণকে প্রাকৃতিক দুর্যোগের প্রভাব থেকে মুক্ত করছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 


Share with :